32.4 C
Rajbari
বুধবার, জুন ২৯, ২০২২
Homeজাতীয়ঢাকা বিভাগআশুলিয়ায় জিএম এর বিরুদ্ধে নারী শ্রমিককে শ্লীলতাহানীতার অভিযোগ, জিএমকে স্বামীর ছুরিকাঘাত

আশুলিয়ায় জিএম এর বিরুদ্ধে নারী শ্রমিককে শ্লীলতাহানীতার অভিযোগ, জিএমকে স্বামীর ছুরিকাঘাত

 


বিশেষ প্রতিনিধিঃ সাভারের আশুলিয়ায় এক পোশাক কারখানায় নারী শ্রমিককে শ্লীলতাহানির ঘটনা জিএমকে (জেনারেল ম্যানেজার) ছুরিকাঘাত করে সেই নারী শ্রমিকের স্বামী আব্দুল বারেক।

মঙ্গলবার (০৫ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে আশুলিয়ার নরসিংহপুর এলাকার আদিয়াত এপ্যারেলস লিমিটেড কারখানায় এ ঘটনা ঘটে৷

পরে রাত ১১ টার দিকে পুলিশ স্বামী ও স্ত্রীকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

আটক দুজন হলেন মরিয়ম আক্তার ও তার স্বামী আব্দুল বারেক। তারা দুজনই নরসিংহপুরের আদিয়াত অ্যাপারেলস লিমিটেডের শ্রমিক।

আহত জিএম এম কে আজাদ (৫০) বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

স্থানীয়রা ও শ্রমিকরা জানায়, বারেক ও তার স্ত্রী আদিয়াত এ্যাপারেলস লিমিটেড কাজ করে।

কারখানায় কাজ করার সময় কারখানার দ্বিতীয় তলায় পরিদর্শনে যায় জি এম আজাদ। এসময় সেই নারী শ্রমিকের গায়ে হাত দেওয়ার অভিযোগে তার স্বামী আব্দুল বারেক একটি ধারালো চাকু দিয়ে আজাদকে আঘাত করে।

এতে তার অনেক রক্তক্ষরণের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে কারখানা কর্তৃপক্ষ আহত জিএমকে প্রথমে নারী ও শিশু হাসপাতালে এবং সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে কারখানার মালিক তামিম মাহমুদ রিংকুর বলেন, ঘটনার সময় আমি কারখানায় ছিলাম না৷ আর এটার বিস্তারিতও জানি না। তবে শুনেছি একজন শ্রমিক জিএমকে ছুরিকাঘাত করেছে।

পরে দ্রুত তাকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি। আর একটি বিষয় হলো জিএম ও শ্রমিক আমারই ফ্যাক্টরীর কর্মকর্তা, কর্মচারী।

এখানে কারখানায় কোনো ঝামেলা হলে তো শ্রমিকরা কাজ বন্ধ করে দিয়ে আমাদের জানাতে পারতো। তবুও চেষ্টা করছি বিষয়টি সমাধানের জন্য।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফরিদুল আলম বলেন, ঘটনার পর পর আমাকে জানানো হলে আমি সেই কারখানায় যাই। সেখানে গিয়ে দ্রুত আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে পাঠাই।

যেহতু এখানে একই সাথে নারী নির্যাতন, শালীনতা চেষ্টা ও ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে তাই বারেক ও তার স্ত্রীকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

এ ঘটনায় দুই পক্ষের অভিযোগ আমলে নেওয়া হবে। প্রয়োজনে তারা চাইলে দুই পক্ষেরই মামলা নেওযা হবে, আবার তারা নিজেরা যদি মিমাংসা হয়ে যেতে চাই তাও হতে পারে। এই বেপার আইনি সকল প্রকার সহযোগিতা করা হবে।

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments