32.4 C
Rajbari
বুধবার, জুন ২৯, ২০২২
Homeরাজবাড়ীদৌলতদিয়ায় পূর্বপাড়ার অসহায় নারীদের মাঝে ডিআইজি'র উপহার

দৌলতদিয়ায় পূর্বপাড়ার অসহায় নারীদের মাঝে ডিআইজি’র উপহার

বিশেষ প্রতিনিধিঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় পবিত্র ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে পূর্বপাড়ার (যৌনপল্লী) অসহায় নারীদের ও তৃতীয় লিঙ্গ হিজরাদের প্রত্যেককের মধ্যে বস্ত্র (শাড়ি) বিতরণ করেছে উত্তরণ ফাউন্ডেশন।

পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) ও উত্তরণ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে দৌলতদিয়া গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র সংলগ্ন এসব বস্ত্র (শাড়ি) বিতরণ করা হয়।

যৌনপল্লি ও আশপাশের এলাকার অসহায়-দুস্থ ১ হাজার ৫০০ জন নারীর মধ্যে শাড়ি বিতরণ করা হয়। বিতরণকাজ তত্ত্বাবধান করেন রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান (পিপিএম) বার)। ও সার্বিক সহযোগিতা করে গোয়ালন্দ ঘাট থানা-পুলিশ।

পবিত্র ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) ও উত্তরণ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) সার্বিক ব্যবস্থাপনায় বিকাল ৫ টার দিকে দৌলতদিয়া যৌনপল্লিসংলগ্ন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মাঠে এসব অসহায় নারীর হাতে শাড়ি তুলে দেন পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদারের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) মো. সালাহউদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল মাঈন উদ্দিন চৌধুরী, গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার, মোস্তাফা মেটাল ইন্ডাঃ লিঃ এর পরিচালক মো. সেলিম মুন্সী, গোয়ালন্দ প্রেসক্লাবের সভাপতি রাশেদ রায়হান, যৌনকর্মীদের নিজস্ব সংগঠন অসহায় নারী ঐক্য সংগঠনের সভাপতি ঝুমুর বেগম প্রমুখ।

পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান বলেন, বর্তমানে মানবিক পুলিশ কার্যক্রমেরে অংশ হিসেবে পুলিশের আইকন অতিরিক্ত উপমহা-পুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি) হাবিবুর রহমান স্যারের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ১ হাজার ৫০০ অসহায় নারী ও তৃতীয় লিঙ্গের জন্য শাড়ি তুলে দেয়া হয়েছে।

স্যার সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষদের সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন দীর্ঘদিন ধরে। তিনি যৌনকর্মী, তৃতীয় লিঙ্গ হিজরা, বেদে পল্লীর বাসিন্দাসহ সমাজের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর ভাগ্যান্নোয়নে সব সময় কাজ করছেন। শত ব্যস্ততার মাঝে তিনি তাদেরকে নিয়ে ভাবেন।

তারই অংশ হিসেবে আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরের সময় যাতে তারাও নতুন শাড়ি পড়ে আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে পারে তারই একটু প্রয়াস হিসেবে আজকের এই অনুষ্ঠান। শুধু তাই নয়, উত্তরণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গোয়ালন্দে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর শিশুদের জন্য শিক্ষার ব্যবস্থা চালু করতে যাচ্ছেন।

অসহায় নারী ঐক্য সংস্থার সভানেত্রী ঝুমুর বেগম বলেন, ডিআইজি হাবিবুর রহমান স্যার আমাদের সব সময় খোঁজ খবর রাখেন। তিনি করোনাকালীন সময় বার বার খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন। চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন।

কোরবানীর ঈদের সময় গোস্তের ব্যবস্থা করেছেন। যা ইতিপূর্বে কখনই হয়নি। আমরা তাঁর এই উদ্যোগের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments