30.8 C
Rajbari
সোমবার, জুন ২৭, ২০২২
Homeজাতীয়চট্টগ্রাম বিভাগকবিরাজের চিকিৎসা নিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার নারী, আটক-১

কবিরাজের চিকিৎসা নিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার নারী, আটক-১

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার বটতলী এলাকায় কবিরাজের কাছে চিকিৎসা নিতে গিয়ে এক নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

ধর্ষণের অভিযোগে আব্দুর রহিম (৪০) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার বটতলী হলুদিয়া গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়।

মোঃ আব্দুর রহিম ওই এলাকার হারুন মেম্বারের বাড়ির মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে।

তথ্য সূত্রে জানা যায়, ভিকটিম নারী অসুস্থ থাকায় কবিরাজি চিকিৎসার জন্য অভিযুক্ত আব্দুর রহিমের মাধ্যমে গত শুক্রবার শহরের তুলাতলী এলাকার উত্তম কবিরাজের কাছে যান।

এর কয়েকদিন পর রাত ১১টায় আবারো কবিরাজি চিকিৎসার জন্য অভিযুক্ত আব্দুর রহিমের ডাকে সাড়া দিয়ে ভিকটিমের ননদ ও ভিকটিম আনোয়ারা উপজেলার বটতলী হলুদিয়া পাড়াস্থ চিতাখলায় যান। সেখান থেকে আব্দুর রহিম তাদের এক ব্রিক ফিন্ডের দক্ষিণ পূর্ব পাশে সেচ পাম্পে নিয়ে গিয়ে রাত তিনটার দিকে আব্দুর রহিমসহ আগে থেকে উৎপেতে থাকা ৫ জন মিলে জোরপূর্বক ভিকটিমকে ধর্ষণ করে বলে জানা যায়।

ঘটনার পরপরই ভিকটিমের পরিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করলে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার বটতলী হলুদিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে এই ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত আব্দুর রহিমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভিকটিম ছদ্মনাম রহিমা (২৭) লক্ষীপুর কমল নগর থানার বাসিন্দা। সে বর্তমানে চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ শেরশাহ এলাকার ভাড়া বাসায় বসবাস করেন। তার স্বামী সাগরে মাছ ধরার কাজ করেন। ভিকটিমের ননদ
মইজ্জারটেক এলাকায় ভাড়া থাকেন।

এ বিষয়ে আনোয়ারা থানার ওসি (তদন্ত) সৈয়দ ওমর জানান, ধর্ষণ মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পুলিশ প্রধান আসামী আব্দুর রহিমকে গ্রেফতার করেছে। আইন অনুযায়ী তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments