21.6 C
Rajbari
সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২
Homeঅপরাধগোয়ালন্দে ঈদ বখশিসের নামে ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি-কৃষকলীগ নেতাসহ আটক ৩

গোয়ালন্দে ঈদ বখশিসের নামে ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি-কৃষকলীগ নেতাসহ আটক ৩

স্টাফ রিপোর্টারঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ঈদ বখশিসের নামে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে কৃষকলীগ নেতাসহ তিন যুবক গ্রেফতার হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো গোয়ালন্দ পৌরসভার দেওয়ান পাড়ার লালমিয়ার ছেলে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ ফরিদ শেখ (৩৫), জুড়ান মোল্লা পাড়ার আঃ জলিল মিয়ার ছেলে মিলন মিয়া (৩৫) এবং কুমড়াকান্দি গ্রামের জনাব আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান হাবিব (৩৫)।

এদের মধ্যে হাবিবুর রহমান হাবিব গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষকলীগের সদস্য সচিব।

তাদের বিরুদ্ধে মালামাল বোঝাই একটি অটোরিকশা আটকে ও এর চালককে জিম্মি করে ঈদ বখশিসের নামে এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়,গত শুক্রবার (৮ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর বাজারের ব্যবসায়ী আহসান হোসেন (৪২) গোয়ালন্দ বাজারের নাজিয়া ট্রান্সপোর্ট থেকে তার ব্যবসায়িক মালামাল একটি অটোরিকশা যোগে খানখানাপুর নিয়ে যাচ্ছিলেন।

অটোরিকশাটি গোয়ালন্দ শহীদ স্মৃতি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছলে পাঁচজন যুবক অটোরিকশাটিকে আটকে স্কুলের পিছনে চিপা গলিতে নিয়ে যায়। সেখানে তারা অটোচালক মামুনের নিকট ঈদের বখশিস বাবদ ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে।অটোরিকশা চালক মালের মালিক নন জানিয়ে টাকা দিতে অক্ষমতা প্রকাশ করেন।

এতে ওই যুবকরা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে কিল-ঘুষি মারে এবং টাকার জন্য মালের মালিক আহসানকে ফোন দিতে বলে। আহসান ফোন রিসিভ করলে তাকে দ্রুত ০১৭১৬-৮৫৮৬৮৫ নাম্বারে ১ লক্ষ টাকা পাঠিয়ে অটোচালক ও মালামাল ছাড়িয়ে নিয়ে যেতে বলা হয়।

মালিক আহসান তৎক্ষনাৎ বিষয়টি গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশকে জানান। থানার এসআই দেওয়ান শামীম মালের মালিক সেজে ফোনে চাঁদার টাকা পরিশোধের কথা বলে কৌশলে ঘটনাস্থলে পৌছেন।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আফজাল বিশ্বাস (৩০) ও মতিউর রহমান (৩০) নামের দুই যুবক ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। তবে হাতেনাতে আটক হয় উপরোক্ত তিন যুবক। পরে তাদেরকে মালামালসহ গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

এ ঘটনায় ব্যবসায়ী আহসান হোসেন বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে ৫ জনকে আসামি করে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, এ ঘটনায় ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ৩ যুবককে শনিবার আদালতের মাধ্যমে রাজবাড়ীর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পলাতক দুই যুবককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments